নোটিশ:
প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীগণ যোগাযোগ করুন!
মেয়াদ বেড়েছে বজ্রপাতের

মেয়াদ বেড়েছে বজ্রপাতের

ডেস্ক রিপোর্ট : বজ্রমেঘ ঘনঘটার সময় বলা হয় এপ্রিল থেকে জুন মাস। তবে কয়েক বছর ধরে এই সময়কাল আরো বেড়েছে।
বর্তমানে মেঘ থেকে মাটিতে বজ্রপাত সেপ্টেম্বর-অক্টোবরেও হচ্ছে। ফলে অসময়ে বজ্রপাতের মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। এজন্য প্রয়োজন অধিকহারে প্রচার এবং সচেতনতা।

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, বজ্রপাত তিন ধরণের হয়। মেঘ থেকে মেঘে। মেঘ থেকে বাতাসে এবং মেঘ থেকে ভূমিতে। গত কয়েক বছর ধরে মেঘ মাটিতে বজ্রপাত লম্বা সময় ধরে হচ্ছে। ফলে নিহত ও ক্ষতিগ্রস্তের সংখ্যা বাড়ছে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্যানুযায়ী, ২০১১ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত প্রায় তিন হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে বজ্রপাতে। এক্ষেত্রে ২০১১ সালে ১৭৯ জন, ২০১২ সালে ২০১ জন, ২০১৩ সালে ১৮৫ জন, ২০১৪ সালে ১৭০জন, ২০১৫ সালে ২২৬ জন, ২০১৬ সালে ৩৯১ জন, ২০১৭ সালে ৩০১৭জন, ২০১৮ সালে ৩৫৯ জন, ২০১৯ সালে ১৯৮ জন, ২০২০ সালে মৃত্যুবরণ করেছেন ২৫৫ জন ও ২০২১ সালে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৩১৪ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

চলতি বছরও এপ্রিল থেকে প্রতি মাসেই বজ্রপাতে মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। চলতি সেপ্টেম্বরেও দেশের বিভিন্ন স্থানে ১২ জন নিহত হয়েছে। গত ৫ সেপ্টেম্বর বিভিন্ন জেলায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বজ্রপাতে ক্ষতিগ্রস্ত বা নিহতের মধ্যে যারা বাইরে কাজে যাচ্ছেন অর্থাৎ যারা মাঠে বেশি অবস্থান করছেন তাদের সংখ্যাই বেশি। এর পেছনে বড় বড় গাছ না থাককেই মূলত দায়ী করা হচ্ছে। আবহাওয়াবিদরা বলছেন, বজ্রপাত আগেও হয়েছে এখনো হচ্ছে। তবে এখন বেশি মৃত্যু হওয়ার পেছনে দায়ী জলবায়ু পরিবর্তন এবং অসচেতনতা।

আবহাওয়াবিদ খো. হাফিজুর রহমান বলেন, এপ্রিল থেকে জুন মাস বজ্রপাতের সময় হলেও এখন সেটা বেড়ে সেপ্টেম্বর-অক্টোবর পর্যন্ত হচ্ছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু অর্থাৎ বর্ষা আগে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত থাকতো। এখন মধ্য অক্টোবরের আগে বর্ষা বিদায় নেয় না। আর বর্ষার পুরো সময়টা ধরেই বজ্রপাত হয়। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে এমনটা হচ্ছে।

তিনি বলেন, বজ্রপাত ঠেকানোর কোনো উপায় নেই। তবে এর ক্ষতিকর প্রভাব থেকে মুক্ত থাকার জন্য প্রয়োজন ব্যাপক প্রচার ও সচেতনতা। গণমাধ্যমকেও ভূমিকা নেওয়া উচিত।

এদিকে বজ্রপাতে হটস্পট বলা হচ্ছে দেশের মধ্যাঞ্চল। বিশেষ করে মানিকগঞ্জ, নরসিংদী, কুমিল্লা এসব অঞ্চলে এবং জামালপুর, সিরাজগঞ্জসহ উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলোতে বজ্রপাত বেশি হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2022 Todaysylhet24.com
Desing & Developed BY DHAKATECH.NET