নোটিশ:
প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীগণ যোগাযোগ করুন!
নগরীতে ছাত্রলীগ-ছাত্রদল সংঘর্ষ: সাংবাদিক আহত

নগরীতে ছাত্রলীগ-ছাত্রদল সংঘর্ষ: সাংবাদিক আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক:: নগরীতে ছাত্রদল ও ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে সাংবাদিক মঈন উদ্দিন মনজু গুরুতর আহত হয়েছেন। সোমবার বিকেলে নগরীর চৌহাট্টা সংলগ্ন আলিয়া মাদরাসা এলাকায় এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
আহত সাংবাদিক মনজুকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সংঘর্ষের খবর পেয়ে দ্রুত পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে নগরীতে সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। একই সময়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে ও ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সাইফ মাহমুদ জুয়েলের শাস্তির দাবিতে সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগ মিছিল বের করে। নগরীর চৌহাট্টাস্থ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার থেকে তারা মিছিলটি বের করে কোর্ট পয়েন্ট ঘুরে আবার চৌহাট্টায় ফিরে যায়।
এসময় কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে জেলা ছাত্রদলের একটি মিছিলও আলিয়া মাদরাসার সামন থেকে বের হয়। মিছিল শেষে আলিয়া মাদরাসার গেটের সামনে অবস্থান করছিলেন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। এসময় ছাত্রলীগ ধাওয়া দেয় ছাত্রদরকে। এতে দুপক্ষের মাঝে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এবং ধাওয়া পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় চৌহাট্টার দোকানপাঠ সহ পথচারীদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে আলিয়া মাদরাসার ভেতরে থাকা ছাত্রদল নেতাকর্মীদের মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। এছাড়াও পেশাগত দায়িত্ব পালনরত ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন (ইমজা) সিলেটের সভাপতি চ্যানেল এস সিলেটের প্রধান প্রতিবেদক মইন উদ্দিন মঞ্জুর উপর হামলা চালানো হয়। অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগ সাংবাদিক মনজুর উপর হামলা করে। খবর পেয়ে কোতোয়ালী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নাঈম আহমদ বলেন, আমাদের মিছিল শেষে চৌহাট্টায় নেতাকর্মীরা যাওয়ার সময় ছাত্রদল মিছিল বের করার চেষ্টা করলে তাদের ধাওয়া দেওয়া হয়। বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা তাদের ধাওয়া দেয়।
মহানগর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বী আহসান বলেন, কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে ছাত্রদলের মিছিল শেষে আলিয়া মাদারাসার গেটের সামনে বসে গল্প করছিলেন। তখন পেছন দিক থেকে ছাত্রলীগের কায়েকজন নেতাকর্মী লাঠি নিয়ে হামলা চালায় এবং এক সাংবাদিককে মারধর করে।
এদিকে, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার সময় পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন (ইমজা) সিলেটের সভাপতি চ্যানেল এস সিলেটের প্রধান প্রতিবেদক মইন উদ্দিন মঞ্জুর উপর কয়েকজন যুবক অতর্কিত হামলা চালান। এতে তিনি গুরুতর আহত হয়েছেন। হামলাকারীরা সাংবাদিক মঞ্জুর হাতের মোবাইল ফোন ভেঙে গুড়িয়ে দেয়। পরে অন্য সাংবাদিকরা তাঁকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। মইন উদ্দিন মঞ্জু বাম হাতে বেশ আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছেন। হাতের এক্স-রে পরীক্ষা করা হয়েছে। হামলাকারীরা ছাত্রলীগের সাথে জড়িত বলে অভিযোগ উঠেছে।
এদিকে সাংবাদিক মঈন উদ্দিন মনজুর উপর হামলাকারী ছাত্রলীগ নেতা টিলাগড় গ্রুপের কর্মী এবং এমসি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী বলে জানা গেছে।


এসএমপির কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ আলী মাহমুদ জানান, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2022 Todaysylhet24.com
Desing & Developed BY DHAKATECH.NET