নোটিশ:
প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীগণ যোগাযোগ করুন!
আইসিডিডিআরবিতে ৩০ দিনে ভর্তি ২৮ হাজার ডায়রিয়া রোগী

আইসিডিডিআরবিতে ৩০ দিনে ভর্তি ২৮ হাজার ডায়রিয়া রোগী

ডেস্ক রিপোর্ট: দেশে ক্রমেই বেড়ে চলেছে ডায়রিয়ার প্রকোপ। ঢাকার আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্রে(আইসিডিডিআর,বি) প্রতিদিনই সহস্রাধিক রোগী ভর্তি হচ্ছে বলে জানা গেছে। রাজধানী ও উপকণ্ঠ এলাকায় হঠাৎ করেই বেড়েছে ডায়রিয়ার প্রকোপ। চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন আইসিডিডিআর,বি’র চিকিৎসকরা।

জানা গেছে, চলতি মার্চ মাসের ৩০ দিনে ২৮ হাজার ৩৫০ জন ডায়রিয়া রোগী ভর্তি হয়েছে আইসিডিডিআর,বিতে। এর আগের মাসে (ফেব্রুয়ারি) ভর্তি হয়েছিল ১০ হাজার ৩৪৪ জন। আর গত জানুয়ারি মাসে ভর্তি হয় ১৫ হাজার ৯০১ জন। আক্রান্তদের বড় অংশ প্রাপ্তবয়স্ক হলেও শিশুদের সংখ্যাও কম নয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সূত্র আইসিডিডিআর,বি’র বরাত দিয়ে এই তথ্য জানিয়েছে।

জানা গেছে, বুধবার পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় আইসিডিডিআর,বি’র হাসপাতালে ভর্তি হয় ১৩১৭ জন ডায়রিয়া রোগী। হাসপাতালে শয্যা খালি না থাকায় বাইরে তাঁবু টাঙানো হয়। সেখানেও রোগীদের জায়গা দেওয়া যাচ্ছে না। বাইরে বড় দুটি তাঁবু স্থাপন করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

সূত্র জানিয়েছে, রোগীদের বেশির ভাগ বয়স্ক ও শিশু। আইসিডিডিআর,বি’তে এখন প্রায় ১৫০০ রোগীর ভর্তির ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে দায়িত্বরত একজন চিকিৎসক জানিয়েছেন। এক চিকিৎসক জানান, ঘণ্টায় ৫৫ থেকে ৬০ জন রোগী ভর্তি হচ্ছে।

আইসিডিডিআর,বি সূত্র বলছে, সারা বছর দৈনিক ৪০০ থেকে ৫০০ ডায়রিয়া রোগী এই হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসেন। বর্ষা মৌসুম শুরুর আগে রোগীর সংখ্যা কিছুটা বেড়ে যায়। সাধারণত মার্চ মাসের শেষ সপ্তাহে রোগীর সংখ্যা দ্রুত বাড়তে থাকে। এপ্রিলের মাঝামাঝি সময় থেকে শেষ সপ্তাহে রোগী চূড়ান্তভাবে বাড়ে। কিন্তু এ বছর দেখা যাচ্ছে ব্যতিক্রম। অন্যান্য বছরের চেয়ে এবার রোগী বেশি আসছে হাসপাতালটিতে।

আইসিডিডিআর,বি’র এসিস্ট্যান্ট সায়েন্টিস্ট ডা. শোয়েব বিন ইসলাম বলেন, ‘রাজধানীর যাত্রাবাড়ী, সায়েদাবাদ, মোহাম্মদপুর, শনিরআখড়া, উত্তরা থেকে বেশি রোগী আসছেন এই হাসপাতালে।’

এবার শিশুদের তুলনায় প্রাপ্তবয়স্ক রোগীর সংখ্যা বেশি বলে জানান এই চিকিৎসক।

গত ২৭ মার্চ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনলাইন বুলেটিনে বলা হয়, গ্রীষ্ম আসার আগেই দেশে ডায়রিয়া রোগী বেড়েছে। বিশেষ করে ঢাকা মহানগরীতে বেড়েছে বেশি। সরকারি হাসপাতালগুলোতে পর্যাপ্ত খাবার স্যালাইন, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেটসহ অন্যান্য লজিস্টিকের সরবরাহ রয়েছে বলেও জানানো হয় বুলেটিনে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2022 Todaysylhet24.com
Desing & Developed BY DHAKATECH.NET