নোটিশ:
প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীগণ যোগাযোগ করুন!
অন্যান্য দেশ থেকে আমারা ভালো আছি সিলেটে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অন্যান্য দেশ থেকে আমারা ভালো আছি সিলেটে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টঃ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সংসদ সদস্য ড. একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ঐক্যবদ্ধভাবে অপপ্রচারকারীদের মোকাবেলা করতকে হবে। যুদ্ধে টালমাটাল এ সময়টাতে বাংলাদেশ যে অন্যান্য দেশের তুলনায় কতটা ভালো আছে তা সাধারণ মানুষের কাছে সবিস্তারে তুলে ধরার মাধ্যমেই অপপ্রচারকারীদের মোকাবেলা সম্ভব বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

শুক্রবার ( ২৬ আগস্ট) সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এ আহ্বান জানান।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, একটি মহল নানাভাবে বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচারে লিপ্ত। এর মাধ্যমে তারা সরকারের জনকল্যাণমূলক কাজকে আড়াল করতে চায়। জনগনের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়াতে এবং বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে তাদের এমন অপপ্রয়াস। আমি আমার আওয়ামী লীগ যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানাই, আপনারা ঐক্যবদ্ধভাবে এই চক্রটিকে মোকাবেলা করুন। তাদের অপপ্রচারের জবাব দিন। জনগনের কাছে গিয়ে তাদের বুঝাতে হবে, যুদ্ধকালীন এই বিরূপ পরিস্থিতিতেও বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে আমরা কতটা ভালো আছি। সবিস্তারে তা তুরে ধরতে হবে।তিনি ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বাংলাদেশের একটি অন্যতম প্রধান ঐতিহ্যবাহী সংগঠনের নাম ছাত্রলীগ। দেশের এমন অনেক অর্জন আছে যার সাথে ছাত্রলীগের অবশ্যই জড়িত। সেই ঐতিহ্যের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে কাজ করতে হবে। সতর্ক হয়ে কাজ করতে হবে- যাতে আপনাদের কোন বদনাম না হয়।

তিনি সবার উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা বেশি বেশি বই পড়ুন। বিশেষ করে বঙ্গবন্ধুকে আরও ভালো করে জানতে বা তার নীতি আদর্শ বুঝতে হলে তার লেখা প্রত্যেকটি বই মনোযোগ দিয়ে পড়তেই হবে।

সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি কিশোয়ার জাহান সৌরভের সভাপতিত্বে ও জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ রাহেল সিরাজের পরিচালনায় শোকসভার শুরতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাজমুল ইসলাম ও মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাইম আহম।

সভায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, মাত্র সাড়ে ৩ বছর সময় পেয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। এই সময়ে জাতিসংঘ বিশ্ব ব্যাংক আইএমএফসহ বিশ্বের অধিকাংশ গুরুত্বপূর্ণ সংগঠনের সদস্য হতে পেরেছিল বাংলাদেশ। মোট ১৭৩টি দেশের স্বীকৃতি অর্জনে সক্ষম হয়েছিল। আর মাত্র ৯ মাসে শাসনতন্ত্র তৈরি হয়েছিল। দ্রুত সময়ে এতসব অর্জন কেবল বঙ্গবন্ধুর কারণেই সম্ভব হয়েছিল।সভায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, মাত্র সাড়ে ৩ বছর সময় পেয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। এই সময়ে জাতিসংঘ বিশ্ব ব্যাংক আইএমএফসহ বিশ্বের অধিকাংশ গুরুত্বপূর্ণ সংগঠনের সদস্য হতে পেরেছিল বাংলাদেশ। মোট ১৭৩টি দেশের স্বীকৃতি অর্জনে সক্ষম হয়েছিল। আর মাত্র ৯ মাসে শাসনতন্ত্র তৈরি হয়েছিল। দ্রুত সময়ে এতসব অর্জন কেবল বঙ্গবন্ধুর কারণেই সম্ভব হয়েছিল।

সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাতি আসাদ উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিধান কুমার সাহা, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট রঞ্জিত সরকার, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. সালেহ আহমদ সেলিম, সিলেট জেলা যুবলীগের সভাপতি শামীম আহমদ ভিপি, মহানগর যুবলীগের সভাপতি আলম খান মুক্তি, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আফসর আজিজ, মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি কাউন্সিলার আফতাব হোসেন খান, সাধারণ সম্পাদক দেবাশু দাস মিঠু, জেলা তাতী লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2022 Todaysylhet24.com
Desing & Developed BY DHAKATECH.NET